শুক্রবার, ২৮শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৩ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং

বিদেশ ফেরত নির্যাতিত নারীকর্মী তাৎক্ষণিক পাবেন ৫ হাজার টাকার অনুদান

খবরটি শেয়ার করুন

সুনামগঞ্জ২৪ ডেস্ক :
বিদেশ থেকে নিপীড়িত, নির্যাতিত অথবা প্রতারিত হয়ে ফিরে আসা বৈধ নারীকর্মীদের তাৎক্ষণিকভাবে সাহায্য করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এজন্য এখন থেকে দেশে ফিরে আসার সঙ্গে সঙ্গে তাদের ৫ হাজার টাকার অনুদান দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের অধীন ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ড। ডিসেম্বর মাস থেকেই এই প্রক্রিয়া কার্যকর হবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ড সূত্রে জানা যায়, বৈধভাবে বিদেশ যাওয়া নারী কর্মীদের মধ্যে অনেকেই নির্যাতন অথবা প্রতারণার শিকার হয়ে দেশে ফেরত আসতে বাধ্য হন। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই তাদের পাঠানো হয় বাজেট এয়ারলাইন্সে। সেখানে খাবার এমনকি পানি খেতে হলেও টাকা দিয়ে কিনতে হয়। ফেরত আসা এসব নারী কর্মীদের কাছে কোনও টাকা পয়সা থাকে না। যার ফলে বিমানবন্দর থেকে বাড়ি ফিরে যেতে, খাবারসহ তাৎক্ষণিক প্রয়োজন মেটাতে তারা সমস্যার সম্মুখীন হন। তাই বহির্গমন ছাড়পত্র নিয়ে যারা বিদেশ গিয়ে দুর্ভাগ্যজনকভাবে নির্যাতন, নিপীড়ন কিংবা প্রতারণার শিকার হয়ে ফেরত আসবেন তাদের ৫ হাজার টাকা করে আর্থিক সহায়তা দেওয়া হবে। এই বিষয়ে একটি চিঠি শিগগিরই ইস্যু করা হবে বলেও বোর্ড সূত্রে জানা গেছে।

✅ বিজ্ঞাপন
cafeneio

বোর্ড সূত্রে আরও জানা যায়, নভেম্বর মাসের ১৮ তারিখে অনুষ্ঠিত ২৯০তম বোর্ড সভায় বিদেশ ফেরত নারী কর্মীদের সাময়িক এই সুবিধা দেওয়ার বিষয়ে নীতিগত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সভার প্রায় এক মাস আগেও বিদেশ থেকে ফেরত আসা নারী কর্মীদের সহায়তা কিভাবে করা যায় তা নিয়ে বৈঠকও অনুষ্ঠিত হয়। সেখান থেকে প্রথমে ৩ হাজার টাকা আর্থিক সহায়তার একটি প্রস্তাব পাঠানো হয়। পরে তা বাড়িয়ে ৫ হাজার টাকা করা হয়।

বোর্ড সূত্রে আরও জানা যায়, বিদেশ ফেরত নিপীড়িত, নির্যাতিত অথবা প্রতারণার শিকার নারী কর্মীদের তালিকা সংশ্লিষ্ট দূতাবাস দেশে পাঠাবে। সেই তালিকার ওপর ভিত্তি করে বিমানবন্দরের প্রবাসী কল্যাণ ডেস্কের মাধ্যমে এই টাকা তাদের হাতে তুলে দেওয়া হবে। এই বিষয়ে একটি চিঠি শিগগিরই ইস্যু করা হবে।

✅ বিজ্ঞাপন
coffeclub

এছাড়া নারীকর্মীদের আর্থিক সুবিধা দেওয়ার পাশাপাশি ঢাকায় অস্থায়ীভাবে ডরমেটরি স্থাপন করার সিদ্ধান্তও গ্রহণ করা হয় বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে। বোর্ডের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানান, বিদেশগামী ও প্রত্যাগত কর্মীদের কল্যাণে ও তাৎক্ষণিক সেবা দিতে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছেই ডরমেটরি, ব্রিফিং সেন্টার ও শেল্টার হাউজ এবং কল্যাণ বোর্ডের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের আবাসন সমস্যা দূর করতে সভায় জমি কেনার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। কিন্তু বর্তমান প্রেক্ষাপট বিবেচনা করে বিদেশ থেকে ফেরত আসা নারীকর্মীদের তাৎক্ষণিক সেবা এবং আশ্রয়ের জন্য বিমানবন্দরের আশেপাশে একটি ভবন ভাড়া করে অস্থায়ীভাবে ডরমেটরি স্থাপনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের মহাপরিচালক গাজী মোহাম্মদ জুলহাস বলেন, বিদেশ থেকে যেসব নারীকর্মীরা প্রতারিত হয়ে কিংবা নির্যাতিত হয়ে অসহায় অবস্থায় দেশে ফিরছেন তাদের জন্য ৫ হাজার টাকার এই অর্থ সহায়তা। যারা স্বাভাবিকভাবে চুক্তি শেষ করে দেশে ফিরছেন তারা এর আওতায় আসবে না। বিমানবন্দরে প্রবাসী কল্যাণ ডেস্ক থেকে এটা দেওয়া হবে। এই সংক্রান্ত চিঠি খুব দ্রুত ইস্যু হয়ে যাবে।

প্রসঙ্গত, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানের তথ্য মতে বিগত চার বছরে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে নারী কর্মী গিয়েছেন ৫ লাখ ২৩ হাজার ৪৭১ জন। যার মধ্যে শুধুমাত্র সৌদি আরবে গিয়েছেন ২ লাখ ৯৩ হাজার ৫৮৮ জন। এছাড়া বিগত চার বছরে শুধুমাত্র সৌদিআরব থেকে দেশে ফেরত এসেছেন ৮ হাজার ৫০৭ নারীকর্মী।
সুনামগঞ্জ২৪.কম/এমআর

খবরটি শেয়ার করুন

✅ বিজ্ঞাপন

✅ বিজ্ঞাপন

✅ বিজ্ঞাপন