বুধবার, ১ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৬ অক্টোবর ২০১৯ ইং

পৌর এলাকার বেহাল অবস্থার দায় এড়াতে পারেন না মেয়র নাদের

নিউজটি শেয়ার করুন

পৌরসভার সকল এলাকার নাগরিকদের সমানভাবে সেবা দান করার ওয়াদা করে ভোট প্রার্থনার পর নাগরিকরা তাদের মতামতের ভিত্তিতে জনপ্রতিনিধি হিসেবে নাদের বখত কে মেয়র হিসেবে নির্বাচিত করে পৌরসভায় দায়িত্ব প্রদান করেন। প্রয়াত জনপ্রিয় মেয়র আয়ূব বখত জগলুলের ‘উন্নয়নের ধারাবাহিকতা ধরে না রাখা’ ও এলাকায় ভোটারদেরকে দেয়া প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে ১বছরেও ‘তেমন কিছু করতে না পারায়’ স্থানীয় নাগরিকদের অভিযোগ প্রসঙ্গে সোমবার ‘নাদেরের ক্ষমতার বাকি ১৮মাস: নেই নতুন বড় প্রকল্প, বেহাল পৌর এলাকা’ শিরোনামে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে সুনামগঞ্জ২৪.কম এ। প্রতিবেদক যেসব বিষয়ে সচিত্রভাবে আলোকপাত করেছেন সে বিষয়গুলো অবশ্যই নাগরিকদের জন্য ভোগান্তির অন্যতম কারণ। ভোটের মাধ্যমে যেহেতু জনগন তাদের সেবা করার জন্য জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত করে থাকেন সেজন্য প্রত্যেক জনপ্রতিনিধির উচিৎ স্থানীয় নাগরিকদের কাঙ্খিত সেবা নিশ্চিত করতে সক্রিয়ভাবে কাজ করা। দায়সাড়াভাবে কিছু না করে সুনামগঞ্জ শহর কে আরও উন্নত করতে আরও নাগরিকবান্ধব পৌরসভা গড়ে তোলতে নির্বাচিত একজন মেয়র হিসেবে নাদের বখত কে অবশ্যই ১নং ওয়ার্ডবাসীসহ সকল ওয়ার্ডের নাগরিকদের প্রতি সমান দৃষ্টি রাখতে হবে। নাগরিকরা যে ভোগান্তির মধ্যে রয়েছেন সে ভোগান্তি লাঘবে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে হবে। নবীনগর এলাকার সড়কের বেহাল অবস্থার সংস্কার কাজ চলমান থাকলে অবশ্যই সে কাজে গতির সঞ্চার করতে হবে। মোহাম্মদপুরবাসী অবশ্যই পৌরভোটে অংশ নেন এবং ওই এলাকার ভোটাররা ভোটের ফলাফলে একটি বড় প্রভাব সৃষ্টি করেন। তাদেরকে বাদ দিয়ে উন্নয়ন পরিকল্পনা চিন্তাও করা যায়না। তাই মোহাম্মদপুরবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি পুরণে এবং সড়কের বেহাল অবস্থার দ্রুত পরিবর্তন আনতে করনিয় বিষয়ে মেয়র নাদের বখত কে এখনই সিদ্ধান্ত নিতে হবে। এছাড়া রাতের শহরকে অপরাধ মুক্ত রাখতে নিরাপত্তা বাতি প্রত্যেক এলাকায় শতভাগ স্থাপন নিশ্চিত করতে হবে। মেয়র জগলুলের মতো জনবান্ধব জনপ্রতিনিধি হতে হলে একজন নাদেরকে মানুষের অসুবিধার কথাই আগে শুনতে হবে। যেভাবে রাতের আঁধারেও বিভিন্ন এলাকায় একা ছুটে যেতেন জগলুল। পৌর শহরের সকল এলাকার মানুষের সেবা নিশ্চিত করতে নতুন নতুন প্রকল্প গ্রহণ এবং দ্রুততম সময়ে বাস্তবায়ন করা জরুরী। মেয়র নাদের পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের বিস্তর সমস্যার দায় কোনভাবেই এড়াতে পারেন না। তিনি এই ওয়ার্ডের বাসিন্দাদের প্রতি আরও দায়িত্বশীলতার প্রমাণ রাখবেন এটাই আমাদের সকলের প্রত্যাশা। একটি সুন্দর ও জনবান্ধব পৌরসভা আমাদের সকলের চাওয়া। এই শহরকে দেশের অন্যতম সুন্দর শহরে রুপ দেয়া আমাদের সবচেয়ে বড় স্বপ্ন। এই স্বপ্ন বাস্তবায়নে আমাদের প্রত্যেককে নিজ নিজ অবস্থান থেকে কাজ করতে হবে। সুনামগঞ্জ কে অনুসরণ করবে পুরো বাংলাদেশ, এটাই আমরা চাই। আর এরজন্য দীর্ঘমেয়াদি ও যুগোপযোগি পরিকল্পণা গ্রহণ এবং এর টেকসই বাস্তবায়ন জরুরী বলেই মনে করি।– মো. আমিনুল ইসলাম(প্রধান সম্পাদক-সুনামগঞ্জ২৪.কম)।

নিউজটি শেয়ার করুন

☑ বিজ্ঞাপন™

☑ বিজ্ঞাপন™

☑ বিজ্ঞাপন™

☑ বিজ্ঞাপন™