বুধবার, ১১ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৭শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

দানি আলভেসসহ অলিম্পিকে ব্রাজিল দলে যারা আছেন

স্পোর্টস ডেস্ক::

দেখতে দেখতে শেষ হয়ে গেল কোপা আমেরিকা ও ইউরো -২০২০। অথচ বৈশ্বিক দুটি আসর ঠিক সময়ে হবে কি না তা নিয়েই ছিল সংশয়। কোপা আমেরিকার ভেন্যু নিয়ে কম নাটক দেখেনি বিশ্ব। অবশেষে দুই আসরের সফল সমাপ্তি শেষে ফুটবলপ্রেমীদের এখন খোরাকের তালিকায় টকিও অলিম্পিক। যেখানে খেলবে – ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, ফ্রান্স, জার্মানি, স্পেনের মতো আন্তর্জাতিক ফুটবলে শক্তিশালী সব দল। ছেলেদের ফুটবলে মোট ১৬ দলের খেলা হবে। অলিম্পিকের মেয়েদের ফুটবল শুরু হবে ২১ জুলাই, ছেলেদের ফুটবল তার একদিন পরেই।

ইতোমধ্যে অলিম্পিক উপলক্ষে স্কোয়াড ঘোষণা করেছে ব্রাজিল। অবশ্য অলিম্পিকের নিয়ম অনুযায়ী সেখানে ২৪ বছরের বেশি খেলোয়াড়রা সুযোগ পাবেন না। দলগুলো সাজানো হয় অনূর্ধ্ব-২৩ খেলোয়াড়দের নিয়েই। যে কারণে মেসি, নেইমার, রোনাল্ডোর মতো সিনিয়রদের ঠাঁই নেই অলিম্পিকে। তবুও এ বৈশ্বিক টুর্নামেন্ট নিয়ে আগ্রহের কমতি নেই। এবারের অলিম্পিকের জন্য ২২ জন খেলোয়াড় নিয়ে দল চূড়ান্ত করেছে ব্রাজিল। গত ২ জুলাইয়ে চূড়ান্ত করা ব্রাজিল দলে নেওয়া হয়েছে বার্সেলোনার সাবেক ও বর্তমানে রাশিয়ার ক্লাব জেনিত সেন্ট পিটার্সবার্গের ফরোয়ার্ড ম্যালকমকে। দগলাস অগুস্তো চোটে পড়ায় ম্যালকমকে দলে ডাকা হয়েছে। ম্যালকমসহ ব্রাজিল দলে ইউরোপে খেলা ফুটবলার আছেন ১১ জন।

ব্রাজিলের অলিম্পিক দলের কোচ আন্দ্রে জারদিনের শিষ্যত্ব হতে ডাক পেয়েছেন কোপার ফাইনালে আর্জেন্টিনার জাল বল জড়ানো একমাত্র ফুটবলার রিচার্লিসন। ইউরোপে এভারটনের হয়ে খেলেন তিনি। আছেন বায়ার লেভারকুসেনের পাউলিনিও, আর্সেনালের ফরোয়ার্ড গাব্রিয়েল মার্তিনেল্লি, লিওঁর মিডফিল্ডার ব্রুনো গিমারেস, বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার রেইনিয়ের, হার্থা বার্লিনের মাতেউস কুনিয়া, সেভিয়ার ডিফেন্ডার দিয়েগো কার্লোস, অ্যাস্টন ভিলার মিডফিল্ডার দগলাস লুইজ, সিএসকেএ মস্কোর ব্রুনো ফুখস ও আয়াক্সের আন্তোনি।

নিয়ম অনুযায়ী ২৪ এর বেশি তিনজন খেলোয়াড় রাখা যাবে দলে। সেই নিয়মে দলে নেওয়া হয়েছে বার্সেলোনায় কিংবদন্তিতুল্য সাফল্য পাওয়া রাইটব্যাক দানি আলভেজকে। ৩৮ বছর বয়সি এই তারকাকে সাও পাওলোর হয়ে এখনও দারুণ খেলছেন।

একনজরে অলিম্পিকের ব্রাজিল দল

গোলকিপার: ব্রেন্নো (গ্রেমিও), লুসাও (ভাস্কো দা গামা), সান্তোস* (আথলেতিকো পারানেন্সে)

ডিফেন্ডার: নিনো (ফ্লুমিনেন্স), রিকার্দো গ্রাকা (ভাস্কো দা গামা), গিলের্মে আরানা (আতলেতিকো মিনেইরো), গাব্রিয়েল মেনিনো (পালমেইরাস), দানি আলভেজ* (সাও পাওলো), দিয়েগো কার্লোস* (সেভিয়া), আবনের ভিনিসিয়ুস (আথলেতিকো পারানেন্সে), ব্রুনো ফুখস (সিএসকেএ মস্কো)

মিডফিল্ডার: মাতেউস এনরিকে (গ্রেমিও), ব্রুনো গিমারেস (লিওঁ), দগলাস লুইজ (অ্যাস্টন ভিলা), ক্লদিনিও (রেড বুল ব্রাগান্তিনো), রেইনিয়ের (ডর্টমুন্ড)।

ফরোয়ার্ড: গাব্রিয়েল মার্তিনেল্লি (আর্সেনাল), পাওলিনিও (লেভারকুসেন), রিচার্লিসন (এভারটন), মাতেউস কুনিয়া (হার্থা বার্লিন), আন্তোনি (আয়াক্স), ম্যালকম (জেনিত)।

সুনামগঞ্জ২৪.কম/ যু / এমসি

error: Content is protected !!